মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ নভেম্বর ২০২১

বিবিধ ই-কমার্স

নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের হাতিয়ার হতে পারে ই-কমার্স   

 

বাংলাদেশে প্রথাগত ব্যবসায়ের মাত্র ৪.৫% বর্তমানে নারী উদ্যোক্তাদের মালিকানাধীন। অন্যদিকে, ফেইসবুক ভিত্তিক ব্যবসায়ের পরিমাণ বর্তমানে বছরে প্রায় ৩২১ কোটি টাকায় এসে দাঁড়িয়েছে, যার ৫০% ব্যবসায়ই মহিলা উদ্যোক্তাদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।*

 

 জয়িতা থেকে ই-জয়িতার যাত্রা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের সর্বস্তরে ডিজিটাইজেশনের মাধ্যমে ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় দেশব্যাপী ছড়িয়ে থাকা জয়িতাদের ডিজিটাল সক্ষমতা বৃদ্ধি, পণ্য বিপণনে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যাবহার এবং ধানমন্ডির রাপা প্লাজায় অবস্থিত জয়িতা বিপণন কেন্দ্রের নারী উদ্যোক্তাদের পণ্য বিক্রয় ও লেনদেনে ডিজিটাইজেশনের সুবিধার্থে “ই-জয়িতা” অনলাইন মার্কেট প্লেস তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়।

ই-জয়িতা অনলাইন মার্কেট প্লেস এ একলক্ষ নারী উদ্যোক্তা সংযুক্ত করার ক্যাপাসিটি রাখা হয়েছে।  রাপা প্লাজায় অবস্থিত জয়িতা বিপণন কেন্দ্রের নারী উদ্যোক্তাগনসহ বিভিন্ন জেলা থেকে নারী উদ্যোক্তারা ই-জয়িতা প্ল্যাটফর্ম এ সংযুক্ত হচ্ছে।

 

 ইতোমধ্যে ই-জয়িতার গৃহীত পদক্ষেপসমূহ

  • ৬৪ জেলা থেকে নারী উদ্যোক্তাদের ই-জয়িতা অনলাইন প্লাটফর্মে আনার কার্যক্রম চলছে ।
  • দেশের সকল নারী উদ্যোক্তা ই-জয়িতার আওতায় আসতে পারবেন। সে লক্ষ্যে এরই মধ্যে ডিজিটাল প্রচারণা কার্যক্রম চলছে।
  • প্রান্তিক পর্যায়ের নারীদের সাথে সাথে ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী এবং বিশেষভাবে দক্ষ জনগোষ্ঠীর নারী উদোক্তাদের মার্কেটপ্লেসে আনার কার্যক্রম চলছে ।
  • ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে নারী উদ্যোক্তাদের নিবন্ধন ও তাদের পণ্যের ছবি ও বিবরণী সংযোজন করা হয়েছে।
  • প্রচারণার মাধ্যমে ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ের সমাগমের চেষ্টা করা হচ্ছে ।
  • একশপ ডেলিভারির সহায়তায় দেশব্যাপী পণ্য ডেলিভারি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
  • ক্রেতা ও বিক্রেতার পেমেন্ট সুরক্ষা নিশ্চিত করতে প্লাটফর্মে যুক্ত করা হয়েছে একশপ  ESCROW পদ্ধতি।
  • ই-জয়িতা প্লাটফর্ম বিষয়ক সক্ষমতা বৃদ্ধির কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।

 ই-জয়িতা এর মাধ্যমে অনলাইনে ক্রয়-বিক্রয় সুবিধাসমূহ

      অনলাইন দোকানঃ 

  • সাধারণ দোকানের সকল সুবিধা অনলাইন শপে পাওয়া যাবে। 
  • জয়িতা ফেইসবুক পেজ সংযুক্ত অবস্থায় পাওয়া যাবে। 

     পণ্যের ইনভেন্টরিঃ 

  • সহজে পণ্যের তথ্যাদি আপলোডের সুবিধা পাওয়া যাবে। 
  • একই পণ্যের একাধিক ছবি আপলোড করা যাবে।
  • পণ্যের স্টক/মজুত স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপডেট হবে।
  • ডিসকাউন্ট বা অন্যান্য ছাড় বা বিপণন হিসাব সংরক্ষিত হবে।

      অনলাইনে অর্ডারঃ  

  • অর্ডার গ্রহণ করা যাবে বিশ্বের যেকোন দেশ থেকে ।
  • কম্পিউটার কিংবা মোবাইল এর মাধ্যমে গ্রাহক সংযুক্ত হতে পারবেন।
  • সংযুক্ত ভিডিও কল অপশনের মাধ্যমে সরাসরি ক্রেতা বিক্রেতা যোগাযোগ করতে পারবেন।
  • এসএমএস এবং ইমেইল এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিক নোটিফিকেশন পাওয়া যাবে।

      ডিজিটাল পেমেন্টঃ 

  • যেকোন ব্যাংক কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন করা যাবে।
  • এমএফএস যেমন বিকাশ এবং রকেটে লেনদেন করা যায়। 

      ডেলিভারিঃ 

  • অনলাইনে পণ্যের ট্র্যাকিং সুবিধা পাবেন গ্রাহক।
  • দেশের শীর্ষস্থানীয় ডেলিভারি কোম্পানির সাথে সংযুক্তি।
  • দেশের বাইরে পণ্য সরবরাহের ব্যবস্থা।   

      লেনদেনের হিসাবঃ 

  • প্রতি অর্ডারের লেনদেনের পরিমাণের  পাশাপাশি মাস কিংবা বছরের তথ্য এবং লাভ ক্ষতির হিসাব সংরক্ষণ।
  • ভ্যাটসহ সহজে বিক্রয় রশিদ প্রিন্ট এর সুযোগ। 

 

  ক্রেতার জন্য খুবই সহজ ক্রয় পদ্ধতি

  • মাত্র দুই ধাপে নাম ও ডেলিভারি ঠিকানা প্রদানের মাধ্যমে অর্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা যাবে।
  • ক্রেতা নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী ক্যাশ – অন – ডেলিভারী অথবা অগ্রিম পেমেন্ট, উভয় সুবিধাই বেছে নিতে পারবেন।
  • অগ্রিম পেমেন্ট এর ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক নির্দেশিত এস্ক্রো সুবিধা সংযুক্ত করা হয়েছে।

  ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে সরাসরি ভিডিও কলের সুবিধা  

 

  • বাংলাদেশে প্রথমবারের মত ক্রেতা পণ্য পছন্দ করে বিক্রেতার সাথে সরাসরি ভিডিও কলে যোগাযোগ করতে পারবেন।
  • এক্ষেত্রে সরাসরি পণ্য নিজ চোখে দেখে নেয়াও সম্ভব। 
  • একই সাথে একটি ভিডিও কলে ৬৫ জন ক্রেতা একজন বিক্রেতার সাথে যুক্ত হতে পারবেন এবং ভিডিও লিংক শেয়ার করা যাবে।
  • এর ফলে ক্রেতা–বিক্রেতার মধ্যে আস্থার একটি নতুন সেতুবন্ধন রচিত হবে । 

 


Share with :

Facebook Facebook